সাধারণের গীত

আমি সাধারণ…
তাই সাধারণের গীত গাই।
আয়েশ এখন কল্পনাতেও ঝাপসা,
সাধ্য ছাড়াইয়াছে অস্তির লড়াই।
অন্নের ভারে কোমর কাঁপিত,
একদা খোয়াইলে কয়েক আনা।
অধুনা কড়ির বস্তা গঞ্জে নিয়া,
না ভরিতে পারি থলের কোণা।
কতিপয় অন্ন এখন ঈদের শশী,
পার্বণে সাক্ষাৎ মেলে।
স্বর্গের আবার কৃতিত্ব কীসের..!
সেথায় অনাহারে প্রাণ গেলে।

আমি সাধারণ…
তাই সাধারণের গীত গাই।
ইটের প্রাচীর নিছক ফুটানি,
যেথায় নিবাসের চাল নাই।
মেঠোপথ আজ পাকা হইয়াছে,
আমি গৌরব দেখি না তাতে।
যেথায় রাজা-উজির শূন্যে চলে,
পাদুকা নাই প্রজার পাতে।
মনিব তোমার কেমন স্বর্গ..!
যেথায় বৈষম্যের পবন বয়।
কারো শখের বিচরণ পাতালপথে,
আবার পাতালেই কারো ক্ষয়।

আমি সাধারণ…
তাই সাধারণের গীত গাই।
যেথায় প্রজার বরাদ্দ পূজার দক্ষিণা,
স্বর্গ নহে আদিম নরক টারে চাই।
নরকেও কানুন রয়েছে,
সেথায় পাপী-তাপী জ্বালানি।
স্বর্গের মঞ্চে এখন পাপীর আসন,
তথাপি হয় না তার মানহানি।


Visit our Instagram and Facebook.

Follow The Interlude for more.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: